মিরপুরের ঘুম ভাঙালেন তামিম

651
Advertisement

 

এখনো পুরোপুরি কাটেনি ঈদের আমেজ। তাইতো বেশিরভাগ ক্রিকেটার এখনো যে যার বাড়িতেই ছুটি কাটাচ্ছেন। যে কারণে মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়াম অনেকটাই হয়ে পড়েছে ঘুমন্ত। দেশের অন্য সব প্রতিষ্ঠানের মতো তাই বাংলাদেশ ক্রিকেট বোডের্ও (বিসিবি) শনিবার সেই আমেজের রেশ চোখ পড়লো। ক্রিকেটার, বোডর্ কমর্কতার্-কমর্চারী, কোচ, সাংবাদিক ও ফিজিওদের পদচারণায় সদা সরব এ জায়গাটির প্রতিটি ক্ষেত্র থেকেই সুনশান নীরবতায় যেন সেই আমেজই ছিল। তবে শনিবার মিরপুরে ব্যাটের আওয়াজে ঘুম ভাঙলেন তামিম ইকবাল।

মিরপুর শেরেবাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়াম, ক্রিকেট একাডেমি ও মূল ফটকের জনাকয়েক নিরাপত্তাকমীর্ ছাড়া আর কারও পদচারণাই দৃষ্টিগোচর হয়নি। হঠাৎই দেখা গেল নীরবতা ভেঙে কালো রঙের প্র্যাডো নিয়ে কেউ একজন হোম অব ক্রিকেটে ঢুকছেন। গাড়ি দেখে বুঝতে বাকি রইলো না তিনি তামিম ইকবাল।

ঈদের ছুটি শেষ না হলেও শুক্রবার চট্টগ্রাম থেকে ঢাকায় ফিরেছেন তামিম। আর শনিবার এ বাঁহাতি ব্যাট-বল নিয়ে নেমে পড়লেন মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামের একাডেমি মাঠে। মেন্টর মোহাম্মদ সালাহউদ্দীনের নিদের্শনায় ঘণ্টাখানেক একটানা মেশিনের বলে করলেন অনুশীলন। মূলত তার ব্যাটের শব্দেই যেন মিরপুরের হোম ক্রিকেট আবারো হয়ে উঠল প্রাণবন্ত।

বলার অপেক্ষা রাখে না সময়টা বেশ ভালোই যাচ্ছে তামিমের। সদ্য সমাপ্ত ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের ওয়ানডে সিরিজে নান্দনিক ব্যাটে দুটি সেঞ্চুরি নিয়ে দেশে ফিরেছেন। এমন ভালো সময়ে নাকি তার কঠোর পরিশ্রম করতেও মন্দ লাগে না। বলেন ‘সময় ভালো গেলে পরিশ্রম করতে খারাপ লাগে না। আর খারাপ গেলে কিছুই ভালো লাগে না।’

তামিম ইকবালের সময় ভালো যাওয়া মানেই তো বাংলাদেশ ক্রিকেটের জন্য সুসংবাদ। ‘তামিমের ব্যাট হাসলে হাসে বাংলাদেশ।’

আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে সংযুক্ত আরব আমিরাতে বসছে এশিয়া কাপের আসর। সেখানে দেশের জাসিের্ত জ্বলে উঠার অপেক্ষায় প্রহর গুনছেন তামিম ইকবাল। তাইতো অনুশীলনে কঠোর পরিশ্রম করছেন তিনি। যা দেখা গিয়েছিল ঈদের আগেও। ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর শেষে যখন সবাই বিশ্রামে, ঠিক সে সময় নিজ উদ্যোগে বাঁহাতি এ ওপেনার প্রায় প্রতিদিন একাডেমি মাঠে অনুশীলন করতেন। মাঝে কয়েকদিন ঈদের কারণে তাতে পড়েছিল ভাটা। তবে আবার শনিবার থেকে চেনা রূপে দেখা গেল চট্টগ্রামের খান পরিবারের ছোট খানকে।

শনিবার অনুশীলনের বেশিরভাগ সময়ই তামিমকে দেখা গেল ফ্রন্টফুটে কাভার ড্রাইভ করতে। সেটা করতে কখনও বল মাটি কামড়ে বা আকাশ সমান উচ্চতায় ফেলেছেন তিনি। এদিকে ফ্লিক শটসও খেলেছেন এ বাঁহাতি। এক পযাের্য় পায়ে ব্যথা পান দেশসেরা এ ওপেনার। তীব্রতা খুব একটা বেশি না থাকায় মিনিট বিশেকের বিশ্রাম নিয়ে আবার ব্যাটিংয়ে নেমে পড়েন চট্টগ্রামের এ ক্রিকেটার।

এশিয়া কাপকে সামনে রেখে আগামী সোমবার থেকে আনুষ্ঠানিক ভাবে অনুশীলন শুরু করবে বাংলাদেশ দল। কিন্তু তার আগে তামিম ইকবাল নিজের ব্যাটিং ঝালিয়ে নিচ্ছেন। যা বাড়তি পাওয়া বলে মনে করছেন তিনি।

সা¤প্রতিক সময়টা দারুণ কাটছে তামিম ইকবালের। কেননা গেল ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে রঙিন পোশাকের ক্রিকেটে রীতিমতো ঝড় তুলেছিলেন এ বঁাহাতি। যে কারণে ওয়ানডে ও টি২০ সিরিজ নিজেদের করে নিয়েছিল টিম টাইগাসর্। আগামী মাসে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া এশিয়া কাপেও এ ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে চান তামিম। একই সঙ্গে দেশকে প্রথমবারের মতো এশিয়া কাপের শিরোপা জেতাতে বদ্ধপরিকর তিনি।