আন্তর্জাতিক মানের গড়ে ওঠার সম্ভাবনা

565
Advertisement

 

পর্যটনকে ঘিরে রাঙ্গামাটি স্টেডিয়াম জাতীয় ও আন্তর্জাতিক মানের গড়ে ওঠার সম্ভাবনা রয়েছে। এতে একদিকে যেমন এ অঞ্চলের খেলাধুলার মান বৃদ্ধি পেত; অন্যদিকে রাঙ্গামাটির পর্যটন শিল্পের প্রসার ঘটত। হ্রদ-পাহাড়ের নৈসর্গিক সৌন্দর্যঘেরা পর্যটন শহর রাঙ্গামাটি।

প্রাকৃতিক সৌন্দর্য আর এ অঞ্চলের আদিবাসী জাতিসত্তার বৈচিত্র্যময় সংস্কৃতি ও জীবনধারা দেখতে দেশ-বিদেশের ভ্রমণপিপাসু পর্যটক ছুটে আসেন রাঙ্গামাটিতে। পর্যটনের এ অপরূপ সৌন্দর্যকে ঘিরে গড়ে উঠতে পারে রাঙ্গামাটিতে একটি জাতীয় ও আন্তর্জাতিক মানের স্টেডিয়াম। এজন্য দরকার সরকারের সদিচ্ছা।

১৯৮০ সালের দিকে রাঙ্গামাটির চিং হ্লা মং মারী স্টেডিয়ামটির কাজ শুরু হয়। পরবর্তী সময়ে সরকার কর্তৃক ২০০০ সালে পূর্ণাঙ্গ স্টেডিয়াম ঘোষণার পরিপ্রেক্ষিতে ৬ হাজার দর্শক ধারণক্ষমতাসম্পন্ন গ্যালারি নির্মাণ করা হয়। তবে বর্তমানে স্টেডিয়ামের সীমানা দেয়ালসহ অনেক কিছু অসম্পূর্ণ রয়েছে। ফুটবল, মহিলা ক্রিকেট ও অ্যাথলেটিকসে জাতীয় পর্যায়ে এ জেলা থেকে অনেক কৃতী খেলোয়াড় রয়েছেন। এখনও অনেকেই জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে খেলে যাচ্ছেন। রাঙ্গামাটির অনেক ক্রীড়াবিদ বলেন, এখানে আন্তর্জাতিক খেলাগুলো হোকÑ তা আমাদের সবার চাওয়া। কিন্তু মাঠটি অসম্পূর্ণ অবস্থায় পড়ে রয়েছে, এখানে সরকারের বিশেষ নজর দেয়া প্রয়োজন।

স্থানীয় ক্রীড়া সংগঠকদের মতে, রাঙ্গামাটি স্টেডিয়ামের মাঠ সংস্কার ও অবকাঠামোগত উন্নয়ন করা হলে এটি আন্তর্জাতিক মানে রূপ লাভ করবে। রাঙ্গামাটি জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক বরুণ দেওয়ান জানান, ১৯৯৬ সালে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী যখন রাঙ্গামাটি সফরে এসেছিলেন, তখন তিনি ঘোষণা দিয়েছিলেন, রাঙ্গামাটিতে একটি পূর্ণাঙ্গ স্টেডিয়াম করার। এরই ধারাবাহিকতায় মোটামুটি আমরা ২০১৪-১৫ ও ২০১৫-১৬ অর্থবছরে আংশিক কাজ পেয়েছি। যেমন গ্যালারি সংস্কার, পুরনো ভবন সংস্কার, জিমনেসিয়াম সংস্কার করা হয়েছে। রাঙ্গামাটি স্টেডিয়াম আন্তর্জাতিক মানে নির্মাণের জন্য আমরা একটি প্রজেক্ট ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছি, তা প্রক্রিয়াধীন। তিন পার্বত্য জেলার মধ্যে রাঙ্গামাটি জেলায় আন্তর্জাতিক মানের স্টেডিয়াম তৈরির সম্ভাবনা রয়েছে। এখানে পর্যাপ্ত পরিমাণের মাঠ রয়েছে।

রাঙ্গামাটি জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহ সাধারণ সম্পাদক আবু সাদাৎ মো. সায়েম বলেন, দেশের অন্যতম পর্যটন শহর হচ্ছে রাঙ্গামাটি। এখানে স্টেডিয়াম নির্মাণের জন্য যে জায়গার প্রয়োজন, সেই পরিমাণ জায়গা থাকা সত্ত্বেও আমরা এখন পর্যন্ত পূর্ণাঙ্গ স্টেডিয়াম নির্মাণ করতে পারছি না, আমরা ব্যর্থ হচ্ছি। এখানে সুইমিংপুল করার সমূহ সম্ভাবনা আছে, এখানে আন্তর্জাতিক মানের টেনিস কোর্ট করার সবকিছু রয়েছে। তিনি বলেন, এটিকে যদি জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক মানের স্টেডিয়াম হিসেব গড়ে তুলতে পারি, তাহলে পর্যটকের দৃষ্টি আকর্ষণ এবং তাদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে পারব। রাঙ্গামাটির মারী স্টেডিয়ামটি আন্তর্জাতিক মানের গড়ে উঠলে এ অঞ্চলের খেলাধুলার মান বৃদ্ধির পাশাপাশি পর্যটন শিল্প আরও বিকশিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন।