একটি ভোট মোস্তফা কামালকে দিন

1055
Advertisement

: দীপ্ত হান্নান : ছয় ফুটের কাছাকাছি প্রানবন্ত, উদ্যমী আর ক্লান্তিহীন শরীরটার কোন কিছুই আর অবশিষ্ট নেই। যেন অনাকঙ্খিত ঝড়ো হাওয়ায় দুমরে মুচরে যাওয়া একটি জীবন। হাড্ডিসার কংকাল জড়ানো চামড়া, বিধ্বস্ত, বিবর্ণ চেহারাটিই বলে দিচ্ছে তিনিই মোস্তফা কামাল। রাঙ্গামাটি শহরের অত্যন্ত সর্বজন নন্দিত, শ্রদ্ধা আর স্নেহভাজন সাংবাদিক ও ক্রীড়া সংগঠক মোস্তফা কামাল। মিষ্টভাষী, সদালাপী এবং অসম্ভব রকমের ভাল মানুষ আমাদেরই মোস্তফা কামাল।

এমন এক পর্যায়ে এসে বর্তমানে তার জীবনটা দাঁড়িয়েছে, যেন বেঁচে থেকেও প্রাণহীন। পুরোপুরি জীবনস্মৃত। অসাড়, শংকাময়। চলমান সময়ে আল্লাহর অপার রহমত ও মানুষের অশেষ দোয়ায় জীবনের কঠিন যুদ্ধে প্রতিনিয়ত লড়ে যাচ্ছেন। সেই মোস্তফা কামাল জেলা ক্রীড়া সংস্থার নির্বাচনে উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সংরক্ষিত পদে নির্বাচন করছেন। সময় ও সুস্থতা পক্ষে থাকলে হয়তো আরো উপরে ভাল পদে নির্বাচন করতেন। ক্যান্সার ও ঝুঁকিপুর্ণ কিডনি নিয়ে বোধয় শেষ নির্বাচন করতে যাচ্ছেন তিনি। বাকীটা আল্লাহই জানেন। তাই বুঝি, একজন মোস্তফা কামালের চাওয়া আপনার মাত্র একটি ভোট।

একটি করে ভোটই মানুষটার ক্রীড়াঙ্গনের পিছনে যে শ্রম দিয়ে গেছেন তারই ইতি টানতে পারবেন স্বস্তি নিয়ে। ক্রীড়াঙ্গনে তিনি একজন আপাদমস্তক ক্রীড়া সংগঠক। ক্রীড়াঙ্গনের কোথায় ছিলেন না তিনি? সর্বত্রই ছিল তাঁর সবর উপস্থিতি। দুমরে মুচরে যাওয়া শরীরটাকে যেখানে বিশ্রামে রাখার কথা সেখানে এখনও তার চিন্তা-চেতনায় মাঠ আর ময়দান।

বিছানার সাথে লেপ্টে থাকা মানুষটা হয়তো দ্বারে দ্বারে গিয়ে ভোট চাইতে পারছেন না। কিন্তু তিনি বড্ড আশাবাদি তাকে কেউ ভুলবেন না। ক্রীড়াঙ্গনের দীর্ঘদিনের সারথিকে সবাই সম্মান করবেন ভোট দিয়ে। মোস্তফা কামাল এবার টেলিফোন প্রতিক নিয়ে নির্বাচন করছেন। জেলা ক্রীড়া সংস্থার এবারকার নির্বাচনে একজন রিক্ত নিঃস্ব মোস্তফা কামাল নামক আপাদমস্তক ক্রীড়া সংগঠককে সর্বোচ্চ সম্মান দিয়ে জিতিয়ে নিয়ে আসবেন এমন প্রত্যাশা সকলের কাছে।