রাঙ্গামাটি ডিএসএ,র দায়িত্বে মামুন-আকবর-শফিউল আজম

1282
Advertisement

: দীপ্ত হান্নান : ২০১৪ সালের নির্বাচনে তীরে এসে তরী ডুবলেও এবার নিরঙ্কুস জয় পেয়ে জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচিত হয়েছেন শফিউল আজম। দোয়াত কলম মার্কায় তিনি এবার ভোট পেয়েছেন ৪৩ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধি কিংশুক চাকমা দেওয়াল ঘড়ি মার্কায় পেয়েছেন ২১ ভোট। অপর সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী আবদুল মামুন পেয়েছেন মাত্র ৭ ভোট।

শনিবার রাঙ্গামাটি জেলা ক্রীড়া সংস্থার কার্যালয়ে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ও প্রধান নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম নির্বাচন পরিচালনা করেন। তাকে সহযোগিতা করেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উত্তম কুমার দাশ ও মোঃ সিরাজুল ইসলাম।

গঠনতন্ত্র অনুযায়ী মোট ৩১ সদস্য বিশিষ্ট জেলা ক্রীড়া সংস্থার কমিটির মধ্যে ২৭ জন নির্বাচিত এবং ৪ জন পদাধিকার বলে কমিটিতে স্থান পেয়ে থাকেন। তারা হলেন জেলা প্রশাসক একে এম মামুনুর রশিদ জেলা ক্রীড়া সংস্থার সভাপতি, পুলিশ সুপার আলমগীর কবির ও এডিসি (জেনারেল) সহ-সভাপতি এবং জেলা ক্রীড়া অফিসার।

এদিন সকাল ৯ টা হতে বিকাল ৩টা পর্যন্ত উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। এর পরপরই শুরু হয় ভোট গণনা। এদিন ৭৩ জন কাউন্সিলর সরাসরি ভোট প্রদান করেন। এদিকে নির্বাচিত প্যানেলই বলে দিচ্ছে এবার ভোটাররা যোগ্য, উদ্যমী, অপেক্ষাকৃত তরুন এবং ক্রীড়া বান্ধব প্রার্থীকেই বেছে নিয়েছেন। নির্বাচিত এ কমিটিতে ক্রীড়াঙ্গনের সবাই খুশি। সবাই আশাবাদি, এবার গতি ফিরবে রাঙ্গামাটি ক্রীড়াঙ্গনের।

সহ সভাপতি পদে এ্যাড. মামুনুর রশিদ মামুন (৬০ ভোট), মো: আকবর হোসেন চৌধুরী (৫৬ ভোট), বরুন দেওয়ান (৪৫ ভোট), প্রীতম রায় (৩৩ ভোট) জয়ী হয়েছেন। এ পদটিতে পরাজিত হয়েছেন সুনীল কান্তি দে (৩০ ভোট), মোঃ শাহ আলম (২৬ ভোট) ও মঈন উদ্দিন সেলিম (২৩ ভোট)।

অতিরিক্ত সাধারণ সম্পাদক পদে নিভানন চাকমা (৪০ ভোট) জয়ী হয়েছেন, হেরেছেন মনোজ কুমার ত্রিপুরা (৩০ ভোট)। যুগ্ম সম্পাদক পদে জিতেছেন আবদুস সবুর (৬৬ ভোট) ও মিথুল দেওয়ান (৬০ ভোট), পরাজিত প্রার্থী শেখর সেন পেয়েছেন ২৬ ভোট, কোষাধ্যক্ষ পদে মনিরুল ইসলাম (৩৭ ভোট) জিতেছেন, অপর বিজীত প্রার্থী রীজেশ বড়–য়া রমেল পেয়েছেন ৩৪ ভোট।
কার্যকরি কমিটির সদস্য পদে জয়ী হয়েছেন প্রদীপ বড়–য়া (৬৬ ভোট), মোঃ আবু তৈয়ব (৬৫ ভোট), তাপস কুমার চাকমা (৬২ ভোট), আশীষ কুমার নব (৫৭ ভোট), রনেন চাকমা (৫৬ ভোট), সাইফুল আলম রাশেদ (৫৫ ভোট), বেনু দত্ত (৫১ ভোট), আহমেদ ফজলুর রশিদ সেলিম (৫২ ভোট), নাসির উদ্দিন সোহেল (৪৯ ভোট), আহমেদ হুমায়ুন কবির (৪৬ ভোট), রমজান আলী (৪৮ ভোট), ঝিনুক ত্রিপুরা (৪৫ ভোট), জয়জিৎ খীসা (৪২ ভোট), তৌহিদুল আলম মামুন (৪১ ভোট)। জিততে পারেনি ইন্দ্রদত্ত তালুকদার, ওয়াহিদুল আলম, নুরুল মোস্তফা মিনার, ফারুক আহমদ তালুকদার বিপু ও মোঃ শাহ আলম।

উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সংরক্ষিত সদস্য পদে মোস্তফা কামাল (৪৫ ভোট), দীপেন দেওয়ান টিটু (৪৪ ভোট) নির্বাচিত হয়েছেন। এ পদটিতে পরাজিত হয়েছেন ঝিল্লোল মজুমদার, সুদর্শন বড়–য়া ও বিদর্শন বড়–য়া।

মহিলা সংরক্ষিত পদে দুইয়ের অধিক কোন প্রার্থী না থাকায় মনোয়ারা জাহান ও বীনা প্রভা বিনা প্রতিদ্বন্ধিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।  নির্বাচিত কমিটি ২০১৮-২২ মেয়াদের কমিটির দায়িত্বভার গ্রহণ করবেন।