সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ ফুটবলের ফাইনালে বাংলাদেশ

1139
Advertisement
: ক্রীড়া প্রতিবেদক : সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ ফুটবলের সেমিফাইনালে টাইব্রেকারে ভারতকে ৪-২ হারিয়ে ফাইনালের টিকিট পেয়ে গেছে বাংলাদেশের কিশোররা।
বৃহস্পতিবার নেপালের আনফা কমপ্লেক্সে প্রথম সেমিফাইনালে নির্ধারিত সময় পর্যন্ত খেলাটি ১-১ গোলে ড্র থাকার পর ভারতকে টাইব্রেকারে ৪-২ গোলে হারিয়েছে লাল-সবুজের দল।
ম্যাচের শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলেছে দুই দল।  ১৭ মিনিটে মাঝমাঠে পাস আদান-প্রদান করে বাংলাদেশের বক্সে ঢোকার চেষ্টা করেছিল ভারত। প্রথম চেষ্টায় ঢুকতে না পেরে কিছুটা পিছিয়ে এসেছিল তারা। ওই মুহূর্তে বক্স থেকে বেশ দূরে বল পেয়ে যান ভারতের হর্ষ শৈলেশ। আচমকা দূরপাল্লার শটে বল জালে জড়ান।
প্রথমার্ধে আর কোনো গোল হয়নি। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে বেশ ভালো কয়েকটি আক্রমণ করলেও কাজে আসেনি। যোগ করা সময়ের ৯৩ মিনিটে পেনাল্টি পায় বাংলাদেশ। বাংলাদেশের এক খেলোয়াড়কে বক্সে ফেলে দিয়েছিল ভারতের এক ডিফেন্ডার। স্পটকিক থেকে ঠান্ডা মাথায় স্কোরলাইন ১-১ করেন আশিকুর রহমান। যেহেতু নক-আউট পর্ব; তাই ম্যাচ গড়ায় টাইব্রেকারে।
স্নায়ুক্ষয়ী টাইব্রেকারে গোলকিপার মেহেদি হাসানের বীরত্বে জিতে যায় বাংলাদেশ। ভারতের প্রথম দুটি শটই ঠেকিয়ে দেন এই কিশোর। টাইব্রেকারে কোনো শট লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়নি বাংলাদেশের। ৪টি শটই নির্ভুল নিশানায় গেছে। শ্যুটআউট শেষে তাই হাসতে হাসতেই মাঠ ছেড়েছে লাল-সবুজের দল।
চলতি টুর্নামেন্টে মালদ্বীপকে ৯-০ ব্যবধানে উড়িয়ে দেওয়ার পর নেপালকে ২-১ গোলে হারিয়ে ‘এ’ গ্রুপের সেরা হয়ে সেমি-ফাইনালে উঠেছিল বাংলাদেশ। এর আগে ২০১৫ সালে নিজেদের মাঠে ভারতকে হারিয়ে এই প্রতিযোগিতার প্রথম শিরোপা জিতেছিল বাংলাদেশ। সেবার অবশ্য প্রতিযোগিতাটি হয়েছিল অনূর্ধ্ব-১৬ বছর বয়সীদের নিয়ে।