লংগদুতে পাহাড়ি খেলাধুলার নানা আয়োজন

562
Advertisement

॥ ওমর ফারুক মুছা, লংগদু ॥ লংগদু উপজেলার পাহাড়িদের গ্রামে গ্রামে সপ্তাহব্যাপি ঐতিহ্যবাহি প্রধান ও প্রাণের উৎসব ‘বৈসাবি’ উপলক্ষে বিভিন্ন উৎসবের কর্মসূচী পালন করা হচ্ছে। ‘বৈসাবি’ ও বর্ষবরণকে কেন্দ্র করে পালন করা হচ্ছে বিজু, সাংগ্রাই, বৈসু, বিহু, সাংক্রান উৎসব। পাহাড়ের অন্যান্য এলাকার মত লংগদুতেও পাহাড়ি সম্প্রদায়ের একাংশ শুক্রবার (১২এপ্রিল) ফুল বিজু উৎসব পালন করলেও অপর একটি অংশ পালন করেছে পরের দিন শনিবার (১৩ এপ্রিল)।

পার্বত্যাঞ্চলের পাহাড়ীদের এই উৎসবকে ঘিরে পাহাড় ভাসছে আনন্দের আমেজে। বৈসাবী উৎসব উপলক্ষে সপ্তাহ ব্যাপী নানান খেলাধুলা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এসব খেলাধুলার মধ্যে রয়েছে মহিলাদের হ্যান্ডবল, পুরুষ ও মহিলাদের রশি টানাটানি সহ পাহাড়ীদের বিভিন্ন গ্রাম্য আদি খেলাধুলা।

শনিবার, লংগদু উপজেলার সোনাই হরকুমার কার্বারীপাড়া বিজু উদযাপন কমিটির উদ্যোগে সকাল সাতটায় এলাকার কয়েক শত পাহাড়ী শিশু, তরুন-তরুনী তাদের ঐতিহ্যবাহি পোশাক পরিধান করে এবং ফুলেল সজ্জিত হয়ে এলাকার পুকুরের পানিতে আনুষ্ঠানিকভাবে ফুল ভাসিয়ে তিনদিনের বৈসবি উৎসব পালনের সূচনা করে।

লংগদু উপজেলার সোনাই হরকুমার কার্বারীপাড়া বিজু উদযাপন কমিটির আহবায়ক মাষ্টার সুখময় চাকমা ও প্রধান পৃষ্ঠপোষক নির্পণ চাকমা জানিয়েছেন,পুরাতন বছরের যাবতীয় দুঃখ,কষ্ঠকে দূর করে নতুন বছরে সকলের মঙ্গল কামনায় পানিতে ফুল ভাসানোর মধ্য দিয়ে ফুল বিজু পালন করা হচ্ছে। আমরা বর্ষপঞ্জিকা অনুসারে শনিবার (১৩এপ্রিল) ‘ফুল বিজু’র উৎসব পালন করছি। সপ্তাহ ব্যাপী নানান খেলাধুলা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছি।

১৪এপ্রিল কারো মতে ১৫এপ্রিল অর্থাৎ ১লা বৈশাখ হচ্ছে বাংলা নব বর্ষের প্রথম দিন।একে বলা হয় গ্যোজাপোজ্যে দিন বা বর্ষবরণ উৎসব। এদিন প্রার্থনার মধ্যদিয়ে পাহাড়ের তিনদিনে উৎসব শেষ হবে।