ইউরোপ যাচ্ছে পাহাড়ের ফুটবল কণ্যা সেনারি

166
Advertisement

: স্পোর্টস রিপোর্টার, খাগড়াছড়ি : সেনারি চাকমা। পাহাড়ের ক্রীড়াঙ্গনে ঝলমল করা সর্বশেষ নক্ষত্রের আরেক নাম। বয়স মাত্র ১৫ কি ১৬। এই বয়সেই উন্নত টেনিং এর জন্য সে পাড়ি জমাচ্ছে ফুটবলের তীর্থভুমি ইউরোপে। স্বভাবতই, খাগড়াছড়িবাসীর চওড়া প্রশস্ত বুকখানি আরো একবার গর্বে ফুলে উঠেছে আরো এক ফুটবল কণ্যার আবির্ভাবে।

সেনারি অনুর্ধ ১৭ প্রমিলা ফুটবলে সে খাগড়াছড়ি জেলা টিমের এটাকিং মিডফিল্ডার। সারা দেশ থেকে এই বয়সী ৪০ জন সেরা ফুটবলার বাছাই করে বিকেএসপিতে ২ মাসের প্রশিক্ষণ দেয়া হয়। সেখান থেকে মাত্র ১৬ জনকে ইউরোপে উচ্চতর প্রশিক্ষণের জন্য মনোনীত করা হয়েছে।

জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস বলেছেন, আমাদের জন্য গর্বের যে, সেনারি সেই ১৬ জনের একজন।

বুধবার খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস সেনারির বাড়িতে যান। তার পরিবারের খোঁজখবর নেন। সঙ্গে ছিলেন সদরের উপজেলা নির্বাহী অফিসার জেসমিন আক্তার ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার সেক্রেটারি জুয়েল চাকমা।

জানা গেছে, অবিলম্বে সেনারি চাকমার পরিবারের জন্য সরকারি বাড়ির কাজ শুরু হবে। একই সাথে সেনারির জন্য অতিরিক্ত একটি কক্ষ নির্মাণের নিমিত্তে তাকে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে পঞ্চাশ হাজার টাকার চেক প্রদান করা হয়েছে। অবিলম্বে সরকারি খরচে তার বাড়িতে বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়া হবে। তার বিদেশ যাবার প্রস্তুতির জন্য খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদ তাকে ইতোমধ্যে আর্থিক অনুদান দিয়েছে। সে বিদেশ থেকে ফিরলে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে মাসিক বৃত্তির ব্যবস্থা করা হবে।