বিশ্বকাপে অফসাইড সংকেত দিবে “আল রিহলা’

21
Advertisement

: স্পোর্টস ডেস্ক : চলতি বছরের মার্চে ঘোষিত হয়েছে আসন্ন কাতার বিশ্বকাপে খেলা হবে ‘আল রিহলা’ নামক ফুটবল দিয়ে। কিনেক্সনের সঙ্গে মিলিত হয়ে এই বলটি তৈরি করেছে বিখ্যাত স্পোর্টস ব্র্যান্ড ‘অ্যাডিডাস’।

বিশ্বকাপের জন্য তৈরি করা নতুন এই বলে অত্যাধুনিক সব প্রযুক্তি যুক্ত করেছে ক্রীড়া সামগ্রী তৈরি করা এই প্রতিষ্ঠান। বিশেষ করে ‘আল রিহলা’ ফুটবলের মধ্যে এমন প্রযুক্তি যুক্ত করা হয়েছে যা অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারিকে নিখুঁত এবং তাড়াতাড়ি সিদ্ধান্ত নিতে সহায়তা করবে। এ ছাড়াও স্বয়ংক্রিয়ভাবে অফসাইডের প্রযুক্তিও যুক্ত করা হয়েছে বলটিতে।

অ্যাডিডাস নিজেদের ওয়েবসাইটে জানিয়েছে যে, তারা ‘আল রিহলা’ নামক বলটিতে ৫০০ হার্জ ইনার্শিয়াল মেজারমেন্ট ইউনিটের একটা মোশন সেন্সর যুক্ত করেছে বলটিতে। যা বলের প্রতিটি মুভমেন্টের হিসাব রাখবে। এই সেন্সর অবশ্য ফুটবলারদের কোনো সমস্যাই করবে না।

বরং রেফারিদের সিদ্ধান্ত নিতে সহায়তা করবে। এই বলটি সেই সেন্সরের সাহায্য রিয়েল টাইম ডাটা ম্যাচ অফিশিয়ালদের কাছে পৌঁছাতে সাহায্য করবে। এ ছাড়াও কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার মাধ্যমে এবং ফুটবলারের অবস্থান আগেই নির্ধারণ করে বলটি অফসাইড নির্ধারণের নিখুঁত তথ্য সহকারী রেফারিকে দেবে।

এ ছাড়াও একজন ফুটবলার বলটি স্পর্শ করার সঙ্গে সঙ্গে ম্যাচ অফিশিয়ালদের এক সেকেন্ডে ৫০০ বারের তথ্য সরাসরি দেবে ‘আল রিহলা’। ফলে কোনো ফুটবলারের অস্পষ্ট স্পর্শ নিয়েও ম্যাচ অফিশিয়ালদের কাছে নিখুঁত তথ্য থাকবে। যা ভিএআর ও অফসাইডের সিদ্ধান্ত নিখুঁত ও তাড়াতাড়ি নিতে সাহায্য করবে।

অ্যাডিডাস মোশন সেন্সরের এই বলটি বিশ্বজুড়ে কয়েকটি পেশাদার এবং তৃণমুল ফুটবল ক্লাবের মাধ্যমে এর পরীক্ষা চালিয়েছে। যেখানে বলের এই কার্যকারিতা সঠিকভাবে উঠে এসেছে।

মোশন সেন্সর সংবলিত ‘আল রিহলা’ বল নিয়ে অ্যাডিডাসের কনজ্যুমার ফোরসাইটের প্রধান হোলগার ক্রায়েশ্চামার বলেন, ‘খেলোয়াড় এবং দর্শকদের জন্য ফুটবলকে আরও উন্নত করতে অ্যাডিডাস কাজ করে যাচ্ছে। সর্বশেষ বুট প্রযুক্তি থেকে শুরু করে হার্ডওয়্যার, কিটস এবং এখন প্রযুক্তি সমৃদ্ধ বল নিয়ে এসেছি। যা দ্রুত এবং নিখুঁত সিদ্ধান্ত নিতে সাহায্য করবে।’

চলতি বছরের ২১ নভেম্বর পর্দা উঠবে কাতার বিশ্বকাপের। প্রায় এক মাসব্যাপী অনুষ্ঠিত বৈশ্বিক এই টুর্নামেন্টটি শেষ হবে ১৮ ডিসেম্বর।