আম্পায়ার নিপুন মারা গেছেন

101
Advertisement

: স্পোর্টস রিপোর্টার : রাঙামাটি জেলা আম্পায়ার এন্ড স্কোরার এসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি কনৌজ চাকমা নিপুন মারা গেছেন। বুধবার ভোর ৫টার দিকে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। মৃত্যুকালে তার বয়স ছিল ৪৫ বছর। তার স্ত্রীসহ এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে। রাঙামাটি শহরের স্টেডিয়াম এলাকায় তিনি বসবাস করতেন।

তার দীর্ঘদিনের ঘনিষ্ট বন্ধু আম্পায়ার জয়জিৎ খীসা নতুন জানান, বুধবার ভোরে বুকে প্রচন্ড অনুভব করেন তিনি। আশংকাজনক অবস্থায় তাকে রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে, সেখানেই মৃত্যুবরণ করেন তিনি। তিনি জানান, এর আগেরদিন রাতে তিনি স্বাভাবিক ছিলেন এবং সহকর্মীদের সাথে খোশগল্পে মেতে ছিলেন।

কনৌজ চাকমা নিপুন একাধারে ফুটবলার ও ক্রিকেটার ছিলেন। পরে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের তালিকাভুক্ত আম্পায়ার হিসেবে রাঙামাটি ক্রীড়াঙ্গনে সম্পৃত্ত ছিলেন। তিনি উইন ষ্টার ক্লাবের সহ সভাপতি ও রাজবাড়ী ক্লাবের সদস্য ছিলেন। তিনি বেসরকারী একটি এনজিওতে কর্মরত ছিলেন।

তার অকাল মৃত্যুতে রাঙামাটি ক্রীড়াঙ্গনে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। ক্রীড়াঙ্গনের সাথে সম্পৃত্ত সকলেই মর্মাহত এবং তাকে শেষ বারের মত দেখতে তার বাড়ীতে ভীড় জমাচ্ছেন।

তার মৃত্যুতে শোক জানিয়ে জেলা আম্পায়ার এন্ড স্কোরার এসোসিয়েশনের সভাপতি মোঃ হান্নান জানান, ২০০৫ সালে আমরা এক সাথে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের তালিকাভুক্ত হয়ে আম্পায়ার হিসেবে যাত্রা শুরু করি।

দীর্ঘদিন উনাকে সাথে নিয়ে কাজ করার সুযোগে জেনেছি, নিপুন দা একজন অমায়িক, সদালাপী, বড় ভালো মানুষ ছিলেন। ক্রীড়াঙ্গনে নিপাট ভদ্রলোক হিসেবে সবার কাছে পরিচিত ছিলেন। তার মৃত্যুতে রাঙামাটি জেলা আম্পায়ার এন্ড স্কোরার এসোসিয়েশনের বড় ক্ষতি হয়ে গেল।

জেলা আম্পায়ার এন্ড স্কোরার এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক নাছির উদ্দিন সোহেল জানান, তার মৃত্যুর খবরটা  বিশ্বাসই করতে পারছি না। বড় ভালো মানুষ ছিলেন। ক্রীড়াঙ্গনের বড় ক্ষতি হয়ে গেল তার মৃত্যুতে।
জেলা আম্পায়ার এন্ড স্কোরার এসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি হাসান উদ্দিন বলেন, খুবই মর্মাহত হলাম। আমরা একজন আন্তরিক ও সাদা মনের মানুষ হারালাম।